USA

নিউইয়র্কে ৯/১১ এর ষোড়শ বর্ষপূর্তি পালন : যেকোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডই ইসলাম ধর্ম বিরোধী


ইউএসএনিউজ অনলাইন.কম, নিউইয়র্ক : ‘ভুলি নাই ১৬ বছর পরেও, ভুলবোনা জীবনেও’ এই প্রত্যয়ের বাণী নিয়ে আমেরিকার সর্বত্রসহ নিউইয়র্কেও পালিত হলো সেই ভয়াল ৯/১১ এর সেড সিক্রটীন বা বেদনার ষোলতম বর্ষপূর্তি। গত ১১ই সেপ্টেম্বর,২০১৭ সোমবার সকালে কুইন্সের এলমহাষ্টে অনুষ্ঠিত এনওয়াইপিডি‘র ১১০ পুলিশ প্রিসিংক্ট এবারের ৯/১১টি অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে পালন করে, কারন ৯/১১ এ যে কয়েকজন পুলিশ অফিসার প্রাণ নিয়েছেন, এই প্রসিংক্টে তাদের সংখ্যা ছিল প্রচুর। মোহাম্মদী সেন্টারের এন্টি-টেরোরিজম এওয়্যারন্যাস ইউনিট বা সন্ত্রাসবাদ বিরোধী সচেতন কেন্দ্রের পরিচালক ইমাম কাজী কায়্যূম ষ্পষ্ট ভাষায় তার রিমার্কে উল্লেখ করেন যে, ৯/১১ এর সন্ত্রাসী কর্মকান্ড এবং এ জাতীয় যেকোন কর্মকান্ড ইসলাম ধর্মীয় বিরোধী। যেখানেই সন্ত্রাসবাদ সেখানেই ইসলাম না বলেছে। তিনি নবী মোহাম্মদের (সাঃ) সন্ত্রাস বিরোধী হাদিস ‘লা-রুহবা-নিয়য়াতা ফিল ইসলা-ম’ পড়ে শুনান। যার অর্থ হলো, শান্তির ধর্ম ইসলামে কোনই সন্ত্রাসবাদ নেই। তিনি বলেন, আমেরিকায় ধর্মীয় সন্ত্রাসবাদের মোকাবেলা এবং এর বিপক্ষে জন সচেতনতা কায়েম করার লক্ষ্যেই ৯/১১ এর পর আমেরিকায় সর্বপ্রথম এ জাতীয় একমাত্র মুসলিম সেন্টার হচ্ছে মোহাম্মদী কম্যিউনিটি সেন্টার ও এর কার্যক্রম এন্টি-টেরোরিজম এওয়ারন্যাস ইউনিট। ইমাম কায়্যূম বলেন, শুধু মসজিদ বা ৪ দেয়ালেই আবদ্ধ ইসলাম নয়, বরং ধর্মালয় থেকে বাহিরেও ভিনমুখী সামাজিক কর্মকান্ডের সফলতার জন্য মোহাম্মদী সেন্টারকে ২০১৫ সনের ১২ই আগষ্ট জাতিসংঘের ইউএস ফেডারেশান ফর মিডিল ইষ্ট পীস প্রোগ্রাম মূল বক্তা হিসেবে সম্মাননা প্রদান পূর্বক আমন্ত্রণ জানানো হয়। সন্ত্রাসে ভরা বিশ্বব্যাপী গজে ওঠা নতুন সব ইসলাম ও এর শাখা-প্রশাখাকে মূলোৎপাটন করে নবী মোহাম্মদের (সাঃ) ৬৩২ খৃষ্টেব্দে বিদায়ী হজ্জ্বের মাধ্যমে প্রদানকৃত ইসলামকে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করতে মোহাম্মদী সেন্টার ও এর অঙ্গ সংগঠন এটিএএউ সীমাহীন প্রতিকূলতার মধ্যেও কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। দেরীতে হলেও আমেরিকায় অবস্থিত মুসলিম কম্যিউনিটি এর সুফল পাবেন বলে ইমাম কাজী কায়্যূম আশাবাদ ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে এলমহাষ্ট বার্ট চার্চের পাদ্রী ফাদার রীক, এসেম্বলিম্যান ফ্রান্সিসকো মোইয়া ও ১১০ প্রসিংক্ট কমান্ডিং অফিসার ক্যাপ্টেন নিকোলা ভেন্টরও বক্তব্য প্রদান করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি